× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ২ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার

জুনে কয়েকদিনেই ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ছাড়াবে

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ৩১ মে ২০২০, রবিবার, ১২:৪৭

জুনের প্রথম কয়েকদিনের মধ্যেই ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ছাড়িয়ে যাবে। এমনই অনুমান বিশেষজ্ঞদের। ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৫০ হাজার থেকে ১ লাখ ৭৫ হাজার পৌঁছাতে মাত্র তিন দিন সময় নিয়েছে। প্রতিদিনই আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। ভারতে সংক্রমণের হার গত ২৪ ঘন্টায় ৮ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। রবিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় ৮৩৮০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে এ পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৮২ হাজার ১৪৩ জনে। আর গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু হয়েছে ১৯৩ জনের।
মোট করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ১৬৪ জনের। তবে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হওয়ার হার ক্রমশ বেড়ে চলেছে। এদিন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গিয়েছেন ৮৬,৯৮৪ জন। ইতিমধ্যেই করোনা সংক্রমণের নিরিখে ভারত চীন, তুরস্কের মত বেশ কয়েকটি দেশকে টপকে নবম স্থানে চলে এসেছে। ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের মধ্যে মহারাষ্ট্র অনেকদিন ধরেই এপিসেন্টার হিসেবে চিহ্নিত। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের সর্বশেষ বুলেটিনের তথ্য মতে, মহারাষ্ট্রে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬৫ হাজার ১৬৮জন। আর রাজ্যটিতে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২১৯৭ জনের। তবে ভারতের বাণিজ্যিক রাজধানী হিসেবে পরিচিতি মুম্বই করোনা সংক্রমণের হটস্পট হয়ে উঠেছে। মুম্বইয়ে এ পর্যন্ত ৩৮ হাজার ৪৪২ জনের মধ্যে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ১২২৭ জনের। মুম্বইয়ে সংক্রমণ বাড়ার পেছনে এশিয়ার বৃহত্তম বস্তি ধারাবির বিশেষ ভূমিকা রয়েছে বলে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন। মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে তামিলনাডু। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ২১ হাজার ১৮৪ জন। আর তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারতের রাজধানী দিল্লি। মোট আক্রান্তের সংখ্যা সেখানে ১৮ হাজার ৫৪৯ জন।
অন্যদিকে দেশের অষ্টম রাজ্য হিসেবে পশ্চিমবঙ্গে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৩১৭ জন। এই সময়ে করোনার জেরে নতুন করে সাত জনের মৃত্যু হয়েছে রাজ্যে। মোট মৃতের সংখ্যা ২৩৭। এর বাইরে রয়েছেন কো-মর্বিডিটির কারণে মারা যাওয়া ৭২ জন। গোটা রাজ্যের মধ্যে কলকাতা এখনও আক্রান্ত এবং মৃতের সংখ্যায় অন্যান্য জেলার তুলনায় এগিয়ে। কলকাতায় আক্রান্তের সংখ্যা দু’হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। করোনায় কলকাতায় মৃত্যু হয়েছে ১৫০ জনের। এ ছাড়া কো-মর্বিডিটির কারণে মৃত্যু হয়েছে ৫২ জনের।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর