× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৪ জুলাই ২০২০, শনিবার

সরব হতে শুরু করেছে ক্রীড়াঙ্গন

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১ জুন ২০২০, সোমবার, ৬:৪১

করোনা ভাইরাসের কারণে অফিস বন্ধ আছে দুই মাসেরও বেশি সময়। সরকারি সিদ্ধান্তে অবশেষে ৬৬ দিন পর অফিস খুলতে শুরু করেছে। গতকাল থেকে শর্ত সাপেক্ষে সরকারি-বেসরকারি অফিসে কাজ শুরু হয়েছে। অন্যদের মতো অনেক ক্রীড়া ফেডারেশনের বন্ধ দরজাও খুলেছে গতকাল। স্বল্প পরিসরে উন্মুক্ত হচ্ছে ক্রীড়াঙ্গন। তবে অফিস খোল্রা সরকারি সিদ্ধান্ত হলেও এখনই খুলছে না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।
বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) অফিস গতকাল সব বিধি মেনে খুলেছে। যদিও করোনার শুরু থেকেই প্রয়োজনীয় কাজকর্ম তারা করে আসছে। ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ বলেন, ‘সরকারি নির্দেশনা মেনে আমরা অফিস খুলতে যাচ্ছি।
এজন্য সবরকম বিধি মানতে হবে। শুরু থেকে অবশ্য আমাদের সব কর্মীদের জন্য অফিস বাধ্যতামূলক নয়। যে বিভাগের কাজ আছে তাদের নিয়েই অফিস করতে চাই। যদিও আমরা করোনার শুরু থেকে জরুরি যেসব কাজ করার দরকার ছিল সেটা করেছি। বলতে গেলে আমাদের কোনও কাজ থেমে নেই।’ করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলেই স্থগিত থাকা বাফুফের নির্বাচনের তারিখও পুননির্ধারণ হবে। সোহাগ বলেন, ‘আমরা অবস্থা পর্যবেক্ষণ করছি। সবকিছু বিবেচনা করেই নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ হবে।’ বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনও (বিওএ) সব কর্মীর অফিসে আসা বাধ্যতামূলক করছে না। বিওএ মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা বলেছেন,‘করোনার কারণে আমাদের জরুরি কোনও কাজ থেমে নেই। বাসায় থেকে যতটুকু সম্ভব কাজ করে যাচ্ছে সবাই। তবে আগামীকাল অফিস খোলা। যাদের প্রয়োজন তারাই অফিসে আসবে। বাকিরা বাসা থেকে কাজ করবে। পরিস্থিতির আরও উন্নতি হলেই আমরা বাংলাদেশ গেমসসহ অন্য বিষয় নিয়ে কাজ শুরু করতে পারবো।’ হ্যান্ডবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান কোহিনূর বলেছেন, ‘অফিস খোলার দিনে কিছু সময়ের জন্য সবাই যাবে। কিছু কাজ ঝুলে আছে। তবে এখনই আমরা কোনও প্রতিযোগিতা শুরুর চিন্তাভাবনা করছি না। এই মাসের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত দেখবো। তারপর হয়তো কোনও ইতিবাচক সিদ্ধান্তে আসতে পারবো।’ আরচারি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কাজী রাজিব উদ্দিন চপলও সতর্ক, ‘আসলে খেলাধুলা আয়োজন করতে গেলে সবকিছুই দেখতে হয়। আমরা হয়তো জরুরি কাজের জন্য অফিস খোলা রাখতে পারি। কিন্তু এখনই খেলা আয়োজন কিংবা ট্রেনিং শুরু করা কঠিন। আমাদের আরও অপেক্ষা করতে হবে।’ পুরোদমে কাজ শুরু করেছে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ (এনএসসি)। তবে গতকাল সেভাবে খোলেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড অফিসে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বোর্ড স্টাফদের এখন পর্যন্ত কাজে যোগদানের কোন নোটিশ দেয়া হয়নি। সব আগের মতই আছে, বহাল রাখা হয়েছে হোম অফিস পদ্ধতি। মানে সবাইকে বাসা থেকে নিজ নিজ কাজ করার কথা বলা আছে। বিশেষ দরকার থাকলে অফিসে যাবেন তারা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর