× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৪ জুলাই ২০২০, শনিবার

শাস্তি নয়, ফুটবলারদের পাশে আছে ফিফা

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ৪ জুন ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৭:২৩

ফুটবল মাঠে কোনো রাজনৈতিক, বর্ণবাদী বা ধর্মীয় বার্তা বহন নিষিদ্ধ। ২০১৪ সালে এ নিষেধাজ্ঞা জারি করে বিশ্ব ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা ফিফা। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের কৃষ্ণাঙ্গ নাগরিক জর্জ ফ্লয়েডকে হত্যার প্রতিবাদে বুন্দেসলিগার বেশ ক’জন ফুটবলার নিয়ম ভঙ্গ করেছেন। তবে ফিফা তাদের পাশেই রয়েছে। সংস্থাটি সকল প্রতিযোগিতার আয়োজকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে, বিষয়টাকে ‘কমন সেন্স’ দিয়ে দেখতে। এক বিবৃতিতে ফিফা বলেছে, ‘ফিফা বরাবরই বর্ণবাদ ও সকল প্রকার বৈষমের বিরুদ্ধে। এসবের আচরণের বিরুদ্ধে আইন সমপ্রতি আরো বলবৎ করেছে সংস্থাটি। ফিফা বেশ কয়েকটি বর্ণবাদ-বিরোধী ক্যাম্পেইনও প্রমোট করেছে।’ গত সপ্তাহে পুলিশের হেফাজতে থাকা অবস্থায় নিহত হন ফ্লয়েড।
এ নিয়ে আমেরিকাতে ছড়িয়ে পড়েছে বিক্ষোভ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে কৃষ্ণাঙ্গদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করছেন সর্বস্তরের মানুষ। ফুটবলাররাও জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ডের বিচার চেয়ে পোস্ট লিখছেন। বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের ইংলিশ ফুটবলার জ্যাডন সানচো রোববার পেডারবর্নের বিপক্ষে হ্যাটট্রিকের পর জার্সি খুলে ফেলেন। নিচে আরেকটি টিশার্টে লেখা ছিল ‘ফ্লয়েডের জন্য ন্যায়বিচার’। জার্সি খোলার কারণে রেফারি তাকে হলুদ কার্ড দেখান। এছাড়া আশরাফ হাকিমি, মার্কাস থুরাম, ওয়েস্টন ম্যাককেনিও ফ্লয়েডের প্রতি সমর্থন জানিয়ে নিজেদের মত করে বার্তা দেন। শোনা যাচ্ছিল ফিফার আইন অমান্য করায় শাস্তির মুখোমুখি হতে পারেন তারা। তবে জার্মান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (ডিএফবি) জানিয়েছে, তারা খেলোয়াড়দের আবেগের বিষয়টি বুঝতে পেরেছে। যে কারণে ফ্লয়েড ইস্যুতে কাউকে শাস্তি দেয়া হবে না বলেই নিশ্চিত করেছেন ডিএফবি প্রেসিডেন্ট ফ্রিটস কেলার। এদিকে, ইংলিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনও (এফএ) জানিয়েছে, ফ্লয়েডের প্রতি সংহতি প্রকাশে কোনো বাধা নেই।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর