× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ১৪ জুলাই ২০২০, মঙ্গলবার

কেন্দুয়ায় নির্মাণকাজ শেষ না হতেই ভেঙ্গে পড়ছে ব্রিজ

বাংলারজমিন

কেন্দুয়া (নেত্রকোা) প্রতিনিধি | ৩ জুন ২০২০, বুধবার, ১১:৩৭

নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় নির্মাণকাজ শেষ না হতেই ভেঙ্গে পড়ছে ব্রীজ। ব্রীজ নির্মাণের নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে অনিয়ম ও দুর্নীতি করে নিন্ম মানের কাজ করায় ভেঙ্গে পড়ছে ব্রীজের বিভিন্ন অংশ। এঘটনাটি উপজেলার বলাইশিমূল ইউনিয়নে আমলিতলা বাজার-সয়রাপাড়া সড়কে ঘটেছে। সুত্র জানায়,এলজিইডি’র অর্থায়নে উপজেলার বলাইশিমূল ইউনিয়নে আমলীতলা বাজার-সয়রাপাড়া সড়কটিতে পাকাকরণ কাজ চলছে। ওই রাস্তায় দু’টি খালের ওপর দুইটি ব্রীজ নির্মাণ করা হয়েছে। আমলীতলা বাজারের পাশে নির্মাণাধীন ব্রীজের এপ্রোচে মাটি দেয়ার সময় ভেঙ্গে পড়তে শুরু করে ব্রীজ। ব্রীজের ধসে পড়া অংশে হাত দিলেই খসে পড়ে ব্যবহারকৃত সিমেন্ট-বালু। ব্রীজ নির্মাণের নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে অনিয়ম ও দুর্নীতি করে নিন্ম মানের কাজ করায় ব্রীজের বিভিন্ন অংশ ভেঙ্গে পড়ছে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেন।
ব্রীজ নির্মাণেই যদি এই অবস্থা হয় তাহলে রাস্তায় কি পরিমাণ দুর্নীতি হবে প্রতিবেদকের কাছে এমন প্রশ্ন রাখেন এলাকাবাসী। ওই রাস্তায় নির্মাণ করা ওপর ব্রীজেও নিন্মমাণের সামগ্রী ব্যাবহার করা হয়েছে বলে স্থানীয় জানায়। স্থানীয় আজমল হোসেন বলেন, ব্রীজ নির্মাণে নিন্মমানের সামগ্রী ব্যবহার করায় ভেঙ্গে পড়া শুরু করছে। তার দাবী পুনঃরায় ব্রীজটি নির্মাণ করে দিতে হবে না হলে এলাকাবাসী মানবে। এ দিকে ওই প্রকল্পের টিকাদারী প্রতিষ্ঠানরে কি নাম বা মূল টিকাদার কে ও বরাদ্ধ কত উপজেলা প্রকৌশলী জাকির হাসানের কাছে জানতে চাওয়া হলে তার কাছ থেকে সঠিক জবাব মেলেনি। তবে তিনি বলেন,বিষয়টি তাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। ব্রীজটি পুনরায় নির্মাণ করা না হলে টিকাদারকে বিল দেয়া হবে না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর