× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ৭ জুলাই ২০২০, মঙ্গলবার

ফেনীতে করোনায় ব্যবসায়ী ও উপসর্গ নিয়ে বৃদ্ধের মৃত্যু

বাংলারজমিন

ফেনী প্রতিনিধি | ৪ জুন ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১১:৫০

ফেনীতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সুনিল সাহা (৬০) নামের এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার রাতে শহরের শহীদ শহীদুল্লা কায়সার সড়কের হোটেল বেস্ট ইন সংলগ্ন আফরোজা ভবনের বাসায় তার মৃত্যু হয়। তিনি শহরের এফ রহমান এসি মার্কেটের ‘শাড়ীজ’ এর স্বত্ত্বাধিকারী। তার বাড়ি কুমিল্লার মুরাদনগর থানার উসুলতলা গ্রামে।

সুনিল সাহার ছেলে অপু সাহা জানান, দীর্ঘদিন ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে বাসায় অবস্থান করে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন বাবা সুনিল সাহা। সম্প্রতি তার শারিরীক অবস্থার অবনতি হলে শুক্রবার বাসা থেকে রাজধানীর ইউনিভার্সেল হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে শারীরিক অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় পরদিন শনিবার তাকে এ্যাপলো হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে সকাল ১১টার দিকে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরে চিকিৎসকদের পরামর্শে ওইদিনই তাকে ফেনীর বাসায় নিয়ে আসেন পরিবারের সদস্যরা।


পরদিন রোববার রাতে ঢাকা থেকে জানানো হয় বাবা সুনিল সাহার শরীরে করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। এরপর চিকিৎসকদের তত্বাবধানে বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছিলেন সুনিল। বাসায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাতে হঠাৎ তার মৃত্যু হয়।

অপু সাহা আরো জানান, ২০০৪ সাল থেকে স্ত্রী ও দু’সন্তানদের নিয়ে ফেনী শহরে বসবাস করেছিলেন সুনিল সাহা। বৃহস্পতিবার সকালে ফেনী পৌর মহাশশ্মানে তাকে দাহ (শেষকৃত্য) করা হবে। একই সাথে বৃহস্পতিবার তিনি, তার মা, স্ত্রী-সন্তানের করোনার পরীক্ষার জন্য নমুনা দিবেন বলেও জানান।

সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা. মো. সরফুদ্দিন আহমেদ জানান, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ফেনীতে ইতোমধ্য চারজন মারা গেছে। এদের মধ্যে দু’জন ফেনী সদর ও দু’জন সোনাগাজী উপজেলার বাসিন্দা। মৃতদের মধ্যে একজন নারী ও তিনজন পুরুষ। এদের একজন স্বাস্থ্যকর্মী, একজন মসজিদের ইমাম, একজন ব্যবসায়ী ও একজন গৃহিনী ছিলেন।

এদিকে ফেনীতে জ্বর, কাশি, শ্বাসকষ্টসহ করোনা উপসর্গ নিয়ে এক বৃদ্ধের (৭৮) মৃত্যু হয়েছে। বুধবার বিকেলে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পর কোভিড-১৯ পরীক্ষার জন্য তার নমুনা সংগ্রহ করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

ফেনী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. ইকবাল হোসেন ভূঁইয়া জানান, ফেনী সদর উপজেলার কাজীরবাগ ইউনিয়নের রুহিতিয়ায় গ্রামের ৭৮ বয়সী ওই বৃদ্ধ জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে মঙ্গলবার মধ্যরাতে হাসপাতালে আসে। এসময় তাকে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে বুধবার বিকেলের দিকে তিনি মারা যান। পরে নিহতের মরদেহ নিজ গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে বিশেষ ব্যবস্থায় দাফন করা হয়।

হাসপাতাল ও জনপ্রতিনিদের সূত্র জানায়, গত ৬ দিনে ফেনী সদর, সোনাগাজী, ছাগলনাইয়া ও দাগনভূইয়া উপজেলায় করোনার উপসর্গ নিয়ে ৮ জন মারা গেছে। এদের মধ্যে ফেনী জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা. মো. সরফুদ্দিন আহমেদ জানান, মৃত্যুর পর সকলের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষর জন্য নোয়াখালীর আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। তবে বুধবার রাত পর্যন্ত উপসর্গ নিয়ে মৃত ব্যক্তিদের ফলাফল জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে এসে পৌঁছেনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর