× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেটকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজান
ঢাকা, ২ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার

টলিউডে বয়স্ক অভিনেতা-অভিনেত্রীদের শুটিংয়ের আগে মুচলেকা দিতে হবে

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ৫ জুন ২০২০, শুক্রবার, ১০:৩৫

পশ্চিমবঙ্গে চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন সিরিয়ালের শুটিংয়ের অনুমতি আগেই দিয়েছিল সরকার। তবে গত কয়েকদিন ধরে আলোচনার পর ঠিক হয়েছে ১০ জুন বুধবার থেকে শুরু হবে টেলিভিশন সিরিয়ালের এবং চলচ্চিত্রের শুটিং। তবে এজন্য সব পক্ষের আলোচনার ভিত্তিতে যে সুরক্ষা বিধি তৈরি হয়েছে তাতে ৬৫ বছরের উর্ধের অভিনেতা-অভিনেত্রীদের মুচলেকা দিয়ে অভিনয় করার কথা বলা হয়েছে। সেইসঙ্গে ১০ বছরের নীচের কোনও শিশু অভিনেতাকেই আপাতত শুটিংয়ের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না। অন্যদিকে ঘনিষ্টতা ও চুম্বনের মত ঘটনাকে এড়িয়ে নতুনভাবে চিত্রনাট্য সাজানোর পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। ফলে আলিঙ্গন, হাত ধরা, চুম্বনের মতো দৃশ্য আগামী বেশ কিছু দিন দেখা যাবে না সিরিয়াল এবং চলচ্চিত্রে। বৃহস্পতিবার বিকেলে মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের তত্ত্বাবধানে টেকনিশিয়ান স্টুডিয়োতে আলোচনায় বসেছিল আর্টিস্ট ফোরাম, ইম্পা, ফেডারেশন এবং প্রোডিউসারস গিল্ড সহ সমস্ত সংগঠনগুলি। সেই বৈঠকেই সর্বসম্মতিক্রমে এইসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
১৫ জুন থেকে দর্শকদের আর কোনও সিরিয়ালের রিপিট টেলিকাস্ট দেখতে হবে না বলে জানানো হয়েছে। তবে বয়স্কদের মুচলেকা দিয়ে শুটিং করার প্রশ্নে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, মাধবী মুখোপাধ্যায়, পরাণ ব›েন্দ্যাপাধ্যায়, সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়ের মত অভিনেতা ও অভিনেত্রীরা দোটানায় পড়েছেন। প্রবীণ অভিনেত্রী লিলি চক্রবর্তী সরাসরি বর্তমান পরিস্থিতিতে শুটিং না করার সিদ্ধান্তই নিয়েছেন। সমস্যায় পড়েছেন সিরিয়ালের প্রযোজক ও চিত্রনাট্যকাররাও। কেননা, সিরিয়ালগুলি প্রবীণদেও গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র থাকে। সেখানে তাদের বাদ রেখে কীভাবে চিত্রনাট্য লেখা হবে তা নিয়ে ভাবনা চিন্তা চলছে। বাড়িতে গিয়ে শুটিং করার প্রস্তাবও রয়েছে। এদিকে অভিনেতা অভিনেত্রীদেও নিজেদের মেকআপ কিট নিজেদেরই আনতে বলা হয়েছে। তেমনি তিনি যে কস্টিউম ব্যবহার করবেন তা শিল্পীকে বাড়ি নিয়ে গিয়ে স্যানিটাইজ ও পরিস্কার করতে হবে। তবে আর্টিস্ট ফোরাম, ফেডারেশন সহ বাকি সংগঠনগুলি বারেবারেই জানিয়েছেন, কোনও শিল্পী যদি এই সঙ্কটকালেও কাজে যোগ দিতে ইচ্ছুক হন তবেই যোগ দেবেন। কোনও বাধ্যবাধকতা নেই। রিস্ক ফ্যাক্টর থাকছেই। তাই ঝুঁকি নিয়েই কাজ করতে হবে সবাইকে। অভিনেতা অরিন্দম জানিয়েছেন, অভিনব ভাবে শুটিং শুরু হচ্ছে। কিন্তু রসাস্বদন থেকে দর্শকেরা যাতে বঞ্চিত না হন সে কথাই সবাই মাথায় রাখছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর