× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৬ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার

রেডজোনে লকডাউন কীভাবে কার্যকর হবে?

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ৬ জুন ২০২০, শনিবার, ৬:৩২

করোনা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে দ্রুত। সরকারি হিসাবেও প্রতিদিন রোগীর সংখ্যা বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে। বাড়ছে মৃত্যু। টানা ৬৬ দিনের সাধারণ ছুটি, গণপরিবহন-শপিংমল বন্ধসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হলেও তাতে সফলতা আসেনি। এখন ভাইরাসের সংক্রমণের মাত্রার ওপর ভিত্তি করে ঢাকাসহ সারা দেশকে রেড, ইয়েলো ও গ্রিন জোনে ভাগ করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। আর জোন ভিত্তিক লকডাউন কার্যকর হবে সহসাই। একটি সূত্র বলছে,
আগামীকাল রোববার থেকে পরীক্ষামূলকভাবে  ঢাকার বিভিন্ন এলাকাকে রেডজোন ঘোষণা করে তা লকডাউন করে দেয়া হবে।    
প্রশ্ন হচ্ছে এ লকডাউন কার্যকর হবে কীভাবে। এলাকা ভিত্তিক লকডাউন রোগীর স্রোত কমাতে কোনো ভূমিকা রাখবে কি না।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্টরা বলছেন,
যেসব এলাকায় রোগী বেশি সেসব এলাকাকে রেডজোন ঘোষণা করা হবে।  নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ওই এলাকা পুরোপুরি লকডাউন করে দেওয়া হবে। লকডাউন থাকা এলাকার জনসাধারণের প্রবেশ ও বহির্গমন বন্ধ থাকবে। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য বাসিন্দাদের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে দেওয়া হবে। এছাড়া, ইয়েলো ও গ্রিন জোন চিহ্নিত করা হবে। ইয়েলো জোনে কেউ খুব জরুরি প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হতে চাইলে সেই সুযোগ দেওয়া হবে। এ মডেল অনুযায়ী গত শুক্রবার পুরো কক্সবাজার পৌরসভাকে রেড জোন ঘোষণা করে লকডাউন দেয়া হয়েছে।
স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও কোভিড-১৯ বিষয়ক মিডিয়া সেলের আহ্বায়ক হাবিবুর রহমান খান জানিয়েছেন দুই এক দিনের মধ্যে পাইলট ভিত্তিতে রাজধানীর কিছু এলাকায় লকডাউন কার্যকর হবে। তিনি বলেন,  শুরুতে আমরা পাড়া, মহল্লা বা ওয়ার্ড এলাকা লকডাউন করবো। শুরুতে সীমিত পরিসরে ঢাকার মধ্যেই লকডাউন করব। কারণ ঢাকাতেই কোভিড-১৯ এর রোগী বেশি।
এর আগে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পর গত ১লা জুন সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, মন্ত্রিপরিষদ সচিবসহ সংশ্লিষ্টরা সভায় বসেন। ওই সভা শেষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনা সংক্রমণের ওপর ভিত্তি করে বিভিন্ন এলাকাকে রেড, ইয়েলো ও গ্রিন জোনে ভাগ করার কথা জানান।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
MD Jahir Uddin
৭ জুন ২০২০, রবিবার, ৪:৫৮

দরকার হলো যথাযত ব্যবস্হা নেওয়া। যেখানে সংশ্লিষ্ট সকল নিয়ন্ত্রক সংস্থা একই সুরে কথা বলবে। শুধু প্রধানমন্ত্রীর দোহায় দিয়ে নিজেরা পাপমুক্ত হওয়ার চেষ্টা থাকবেনা।

অন্যান্য খবর