× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৫ জুলাই ২০২০, বুধবার
সাউথ পয়েন্ট স্কুল এন্ড কলেজ

প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই শতভাগ পাসের ধারা অব্যাহত

বাংলারজমিন

নজরুল ইসলাম | ৭ জুন ২০২০, রবিবার, ৭:২০
করোনার কারণে এবার ক্যাম্পাসে উপস্থিতি নেই। তবে গতবার ফলাফল প্রকাশের পর এভাবেই উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছে শিক্ষার্থীরা। -ফাইল ছবি সাউথ পয়েন্ট স্কুল এন্ড কলেজ

সদ্য প্রকাশিত মাধ্যমিক পরীক্ষায় রাজধানীর সাউথ পয়েন্ট স্কুল এন্ড কলেজ বরাবরের মতো এবারও সাফল্যের ধারা অব্যাহত রেখেছে। প্রতিষ্ঠানটির মালিবাগ, বারিধারা ও মিরপুর শাখার কোথাও ফেল নেই। জন্মলগ্ন থেকেই এই ধারা অব্যাহত রয়েছে। উত্তরা শাখা নতুন বিধায় এখনো এই শাখা থেকে মাধ্যমিক পরীক্ষায় কেউ অংশগ্রহণ করেনি। আর বনানী শাখাটি সম্পূর্ণ ইংরেজি মাধ্যমের। পরীক্ষায় সাউথ পয়েন্টের ৪৫২ জন অংশগ্রহণকারীর সকলেই পাস করেছে। জিপিএ-০৫ পেয়েছে সর্বমোট ২৯৬ জন। বাংলা মাধ্যমে মোট ২৭৬ জন অংশগ্রহণকারীর সকলেই পাস করেছে এবং জিপিএ-০৫ পেয়েছে ১৫৯ জন।
ইংরেজি মাধ্যমের পরীক্ষায় অংশ নেয় ১৭৬ জন, তন্মধ্যে শতভাগ পাসসহ জিপিএ-০৫ পেয়েছে ১৩৭ জন শিক্ষার্থী।
এবারের ফলাফলে সবচেয়ে বেশি খুশি প্রতিষ্ঠানটির বারিধারা শাখার শিক্ষার্থীরা। করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারণে প্রতিষ্ঠানে উপস্থিত হতে না পারলেও ফোনে তারা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছে। এই শাখা থেকে ১৩৪ জন অংশগ্রহণকারীর মধ্যে জিপিএ-০৫ প্রাপ্তির হারও প্রায় শতভাগ। মোট জিপিএ পাঁচ ১০০ জন আর বাকি সকলেই এ পেয়েছে (৪.৫ এর ঊর্ধ্বে)। এই শাখার বিজ্ঞান বিভাগের অবস্থা রীতিমতো ঈর্ষণীয় বলতে হয়। মোট ১০৬ জন অংশগ্রহণকারীর ৯৫ জনই জিপিএ-০৫। ইংরেজি ভার্ষণের অবস্থা আরো ভালো। এদের বিজ্ঞান শাখার ৩৬ শিক্ষার্থীর সকলেই জিপিএ-০৫ পেয়েছে। অর্থাৎ শতভাগ জিপিএ-০৫। এই শাখায় জিপিএ-৪.৫ এর নিচে কোনো গ্রেড নেই। মালিবাগ শাখার শিক্ষার্থীরাও ভালো করেছে। এদের ২৪৮ অংশগ্রহণকারীর ১৭৬ জনই জিপিএ-০৫ পেয়েছে। ইংলিশ ভার্ষণে বিজ্ঞান শাখার ৯৭ অংশগ্রহণকারীর ৮৬ জনই জিপিএ-০৫। শুধু এসএসসি, এইচএসসিতেই নয় জেএসসি, পিইসি ও বৃত্তিতেও এই প্রতিষ্ঠানের রয়েছে ঈর্ষণীয় ফলাফল এবং এর ধারাবাহিকতাও রয়েছে। প্রতি বছরই জিপিএ-৫ বৃদ্ধিসহ প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে এ যাবৎ কোনো ফেল নেই, শতভাগ পাস। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের থানাভিত্তিক গ্রেডিং ফলাফলে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষা-২০১৯ এ প্রকাশিত থানাভিত্তিক গ্রেডিং ফলাফলে ‘সাউথ পয়েন্ট’ গুলশান থানায় শীর্ষ স্থান অর্জন করে। গুলশান থানায় অবস্থিত ১৭টি স্কুল-কলেজের প্রকাশিত ফলাফলের উপর বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে এই অভূতপূর্ব ফলাফল অর্জন করে প্রতিষ্ঠানটি। গত ৩১শে ডিসেম্বর ২০১৯ তাং প্রকাশিত পিইসি, জেএসসি উভয় পরীক্ষায়ই সাউথ পয়েন্ট বিগত বছরগুলোর মতো ভালো ফলাফল করেছে। এই দুই পরীক্ষায় সাউথ পয়েন্টের পরীক্ষার্থী ছিল ১৩৫৪ জন। তন্মধ্যে শতভাগ পাসসহ জিপিএ-০৫ পেয়েছে ৮৫৬ জন। যা মোট পরীক্ষার্থীর শতকরা ৬৩ ভাগ। শুধু জেএসসি-পিইসিই নয়, বৃত্তিতেও এদের রেকর্ড রয়েছে। গত বছর গুলশান থানায় ৮৫ জন বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীর মধ্যে ৭৫ জনই ছিল সাউথ পয়েন্টের। এর মধ্যে ট্যালেন্টপুলে পেয়েছিল ১৮ জন। ২০০৯ সালে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক শ্রেষ্ঠ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের স্বীকৃতিসহ উক্ত বছরেই উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় ৯ম স্থান লাভ করে সাউথ পয়েন্ট। গতানুগতিক পুঁথিগত শিক্ষাদানের পরিবর্তে সৃজনশীল পদ্ধতিতে মূল পাঠ্যের বুদ্ধিবৃত্তিক চর্চায় অভ্যস্ত হওয়ার ফলে প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে আজ অবধি বোর্ড পরীক্ষায় এই প্রতিষ্ঠানের কোনো পরীক্ষার্থীর অকৃতকার্য হওয়ার রেকর্ড নেই। জিপিএ ফাইভের হারও প্রতিবছরই ৮০ থেকে ৯০ শতাংশ। উচ্চ শিক্ষার্থে ভর্তির যে প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা, সেখানেও ক্রমান্বয়ে ভালো করছে সাউথ পয়েন্টের শিক্ষার্থীরা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর