× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১০ আগস্ট ২০২০, সোমবার
অস্তাচলে তারকা ( এক )

চাঁদে জমি কিনেছিলেন সুশান্ত

ভারত

জয়ন্ত চক্রবর্তী | ১৫ জুন ২০২০, সোমবার, ৯:৩৬

বলিউড নায়ক সুশান্ত সিং রাজপূত এর আত্মহত্যার ঘটনা আজ দেশ - বিদেশের হেড লাইনস। কিন্তু কি এমন ঘটেছিল যে মাত্র চৌত্রিশ বছর বয়েসেই জীবন থেকে ছুটি নিতে হল সুশান্তকে? তিন কিস্তিতে প্রকাশিত হবে মানবজমিন এর বিশেষ অনুসন্ধান। আজ প্রথম কিস্তি প্রকাশিত হল-

চাঁদে একটুকরো জমি কিনেছিলেন সুশান্ত সিং রাজপূত। ইন্টারন্যাশনাল লুনার সোসাইটি যখন কাগজে বিজ্ঞাপন দিয়ে চাঁদে জমি বিক্রির কথা ঘোষণা করেছিল তখনই এই জমি কেনেন বলিউড তারকা। আসলে মহাকাশ, চাঁদ তাঁকে খুব টানতো। ঘণ্টার পর ঘণ্টা তাঁর অতি প্রিয় আলমির ডি 600 টেলিস্কোপটি নিয়ে তিনি বান্দ্রার বহুতলের ছাদে বসে আকাশ দেখতেন। চন্দ্রাহত হয়েই কি চলে গেলেন সুশান্ত সিং রাজপূত? দু’বছর আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় সুশান্ত তাঁর পঞ্চাশটি স্বপ্নের কথা লিখেছিলেন। তার একটিতে ছিল নভোচর হওয়ার স্বপ্ন।
রবিবার দুপুরে সুদূর মহাকাশযাত্রী হয়ে গেলেন তিনি। সুশান্তর ঝুলন্ত দেহটি যখন সিলিং ফ্যান থেকে নামান হয় তখন তাঁর পরনে ছিল ধূসর রঙের শর্টস আর টি শার্ট। সুশান্তর মনের ধূসরতার সন্ধান কেউ কি কোনোদিন নিয়েছিল? বন্ধুদের সঙ্গে আগের রাতে বান্দ্রার ফ্ল্যাটে পার্টি করেছিলেন সুশান্ত। রবিবার বেলা দশটা পর্যন্ত ঘুমান। তারপর এক গ্লাস জুস খান। এরপর ঘরের দরজা বন্ধ করে দেন। বন্ধুরা এসে ঘরের দরজা খোলার চেষ্টা করেন। দরজা না খোলায় সুশান্তর মোবাইল এ ফোন করেন। সেই ফোনের জবাব না আসায় দরজা ভেঙে দেখা যায় চৌত্রিশের অভিনেতা সিলিং থেকে ঝুলছেন। আত্মঘাতী হয়েছেন সুশান্ত। মিনিটের মধ্যে সুশান্তের সুইসাইড এর সঙ্গে দিন কয়েক আগে তাঁর প্রাক্তন সেক্রেটারি দিশা সাইলান এর আত্মহত্যার ঘটনাকে জড়িয়ে ব্রেকিং নিউজ এর বন্যা বয়ে যায়। তবে কি দিশার সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন সুশান্ত? তাই নয় জুন দিশা বহুতল থেকে ঝাঁপিয়ে আত্মহত্যা করলেন। আর চৌদ্দ জুন সুশান্ত ! মানবজমিন অনুসন্ধান করে জানতে পেরেছে যে দুই আত্মহত্যার মধ্যে বিন্দুমাত্র সম্পর্ক নেই। বয়ফ্রেন্ড রোহিত রাই এর সঙ্গে সম্পর্কের অবনতিতেই দিশা আত্মঘাতী হন। সুশান্ত তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে বার্তা পাঠিয়েছিলেন। তখন কি তিনি জানতেন পাঁচদিন পরে তাঁর জন্যেও বার্তা পাঠাবেন স্বয়ং দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি? একটি তরতাজা যুবক যার ছবির মতো বাড়িটি সাজিয়ে দিয়েছিলো এশিয়ান পেন্টস, যার গ্যারাজ এ অডি সহ একাধিক গাড়ি, যে কুড়ি কোটি টাকা দিয়ে সম্প্রতি একটি পেন্টহাউস কিনেছিল, ছবি প্রতি যার পারিশ্রমিক সাত কোটি টাকা। সে কোন মানসিক অবসাদের স্বীকার হয়ে জীবন থেকে বিদায় নিলো? সুশান্তের ঘোরে ছানবিন চালিয়ে পুলিশ এন্টি ডিপ্রেশন ড্রাগ পেয়েছে। পেয়েছে মেডিকেল কাগজপত্র। সুশান্তর মামা তাঁর মৃত্যুর সি বি আই তদন্ত চেয়েছেন। পুলিশ কিন্তু এখনো কোনও রহস্য দেখছে না এই মৃত্যুতে। কিন্তু, কি অমন অবসাদ যে সুশান্ত সিং রাজপূত কে আত্মঘাতী হতে হল?
(দ্বিতীয় কিস্তি আগামীকাল)

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর