× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৩ আগস্ট ২০২০, বৃহস্পতিবার

কঙ্গনার অভিযোগ

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক | ৩০ জুন ২০২০, মঙ্গলবার, ৮:১৫

সুশান্তের বিরুদ্ধে মিটু-র মিথ্যে অভিযোগ এনে মনোবল ভেঙে দেওয়া হয়। এমন  অভিযোগে সরব হলেন কঙ্গনা। তিনি দাবি করেন, ২০১৮ সালে সুশান্তের বিরুদ্ধে মিটু-র অভিযোগ আনা হয়। সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকে একের পর এক বলিউডের একাংশের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করছেন কঙ্গনা। এবার তিনি মুখ খুললেন সুশান্তের বিরুদ্ধে যখন হেনস্থার অভিযোগে মিটু আনা হয়, সেই বিষয়টিকে নিয়ে। সম্প্রতি নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে একটি পোস্ট  দেন কঙ্গনা। যেখানে তিনি অভিযোগ করেন, ২০১৮ সালে মিটু ক্যাম্পেইনের মধ্যে অযথাভাবে টেনে নিয়ে আসা হয় সুশান্তের নাম। মিথ্যে অভিযোগ করা হয় তার বিরুদ্ধে।
ওই ঘটনার পর সুশান্ত পালটা দাবি করেন, তাকে মিথ্যে অভিযোগে ফাঁসানো হচ্ছে। এমনকী, ওই মিথ্যে অভিযোগের জেরে, তিনি ক্রমশ অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়ছেন বলেও ওই সময় মন্তব্য করতে শোনা যায় সুশান্তকে। এবার সুশান্তের মৃত্যুর পর বিষয়টিকে ফের প্রকাশ্যে আনলেন কঙ্গনা । তিনি দাবি করেন, মিটু-র মিথ্যে অভিযোগ এনে সুশান্তের ভাবমূর্তিতে কাঁদা ছেটানো হয়। কারা ওই ঘটনায় জড়িত, তাদের নাম এবার প্রকাশ্যে আনতে হবে বলেও জোর গলায় দাবি করেন বলিউড কুইন। প্রসঙ্গত ওই সময় দিল বেচারের সহকর্মী সঞ্জনা সাঙ্ঘি সুশান্তের বিরুদ্ধে মিটুর অভিযোগ আনেন বলে দাবি করা হয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের তরফে। যদিও ওই সিনেমার পরিচারক মুকেশ ছাবড়া  পুরোপুরি অস্বীকার করেন সুশান্তের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ। এমনকী, সুশান্তের পাশেও দাঁড়ান মুকেশ ছাবড়া। ২০১৮ সালের সেই পুরনো প্রসঙ্গ টেনে এনে কঙ্গনা দাবি করেন, সুশান্তকে ইচ্ছে করে ফাঁসানো হয় ওই সময়। সুশান্তের মনোবল ভেঙে দিতেই ওই সময় তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের মিথ্যে অভিযোগ করা হয় বলেও দাবি করেন এই অভিনেত্রী ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর