× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১০ আগস্ট ২০২০, সোমবার

লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে এফবিসিসিআই ও ডিসিসিআইয়ের শোক

অনলাইন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | ১ জুলাই ২০২০, বুধবার, ৫:২১

এফবিসিসিআইয়ের প্রাক্তন পরিচালক এবং ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান শিল্পপতি লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন এফবিসিসিআই'র সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম।

বুধবার এক শোকবার্তায় এফবিসিসিআই সভাপতি জানান, শিল্পপতি লতিফুর রহমান ১৯৯৪-১৯৯৬ মেয়াদে এফবিসিসিআই-এর পরিচালক ছিলেন।

লতিফুর রহমান ১৯৪৫ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তার স্ত্রীর নাম শাহনাজ রহমান। এই দম্পতির এক ছেলে আর দুই মেয়ে। তিনি দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন। শেষ সময়গুলোর বেশিরভাগ সময়ই তিনি কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের বাড়িতে থাকতেন।

৭৪ বছর বয়সী এই ব্যবসায়ী ট্রান্সকম গ্রুপের কর্ণধার। এই গ্রুপে ফাস্টফুড, কোমল পানীয়, ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক পণ্য, ঔষুধ, সংবাদপত্র, চা শিল্প, বীমা ইত্যাদি ব্যবসায়ের সঙ্গে জড়িত। ট্রান্সকম গ্রুপ যার উৎপত্তি হয়েছিল চা চাষের মাধ্যমে, এখন বাংলাদেশের অন্যতম একটি বড় করপোরেট প্রতিষ্ঠান, যার রয়েছে ১৬টি কম্পানি। ১০ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান করেছে এ গ্রুপের।
এ ছাড়া নেসলে বাংলাদেশ, হোলসিম বাংলাদেশ এবং ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স ও ইনভেস্টমেন্টের চেয়ারম্যান। তিনি লিন্ডে বাংলাদেশ এবং এনজিও ব্র্যাকের গভর্নিং বোর্ডের পরিচালক। তিনি আইসিসি বাংলাদেশের সহ-সভাপতি ছিলেন। তার মৃত্যুতে দেশ ও জাতির জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি। তাকে হারিয়ে আমরা শোকাহত।

এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

এদিকে লতিফুর রহমানের মৃত্যুতে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করছে। ঢাকা চেম্বারের সভাপতি শামস মাহমুদ বলেন, দেশের ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নয়ন, বিনিয়োগ সম্প্রসারণ এবং বিশেষ করে বেসরকারীখাতে কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে তিনি অসামান্য অবদান রেখে গেছেন। তার এ মৃত্যু শুধুমাত্র পরিবারের সদস্যবৃন্দই নয়, বরং পুরো দেশবাসী একজন সফল উদ্যোক্তাকে হারালো, যা আমাদের জন্য একটি অপূরণীয় ক্ষতি বলে ডিসিসিআই সভাপতি মনে করেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর