× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৭ আগস্ট ২০২০, শুক্রবার

‘উপদেশ দিতেই আমার গলায় চাকু ধরলো ইউনুস’

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ৩ জুলাই ২০২০, শুক্রবার, ১০:৫৮

ক্রিকেটকে বলা হয় ভদ্রলোকের খেলা। তবে মাঝে মধ্যেই অভদ্র আচরণ করে বসেন খেলোয়াড়রা। তেমনি একটি ঘটনা ২০১৬তে পাকিস্তানের অস্ট্রেলিয়া সফরে| মিকি আর্থার তখন দলটির প্রধান কোচ। আর ব্যাটিং কোচের দায়িত্বে গ্র্যান্ড ফ্লাওয়ার। ব্রিসবেন টেস্ট চলাকালীন পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান ইউনুস খানকে পরামর্শ দিয়ে অপ্রীতিকর অভিজ্ঞতা হয়েছিল ফ্লাওয়ারের।

‘ফলোয়িং অন ক্রিকেট পডকাস্ট’-এ গ্র্যান্ড ফ্লাওয়ারকে হোস্ট নিল ম্যানথর্প জিজ্ঞেস করেন, কোচিং ক্যারিয়ারে কাদের সামলাতে সবচেয়ে বেগ পেতে হয়েছে তাকে? তখন ব্রিসবেন টেস্টের সেই ঘটনা উল্লেখ করেন গ্ল্যান্ড ফ্লাওয়ার- প্রথম ইনিংসে শূন্য রানে আউট হওয়া ইউনুসকে পরামর্শ দেয়ার পর কী ঘটেছিল ড্রেসিং রুমে। জিম্বাবুয়ের সাবেক এই ক্রিকেটার বলেন, ‘ইউনুস খানকে সামলানো খুব কঠিন ছিল। ব্রিসবেনের একটি ঘটনা মনে আছে আমার। টেস্ট চলাকালীন ব্রেকফাস্টের সময় আমি তাকে ব্যাটিং নিয়ে কিছু উপদেশ দেয়ার চেষ্টা করি।

কিন্তু সে আমার উপদেশ তো সদয়ভাবে নিলোই না বরং আমার গলায় চাকু ধরলো। মিকি আর্থার পাশেই বসা ছিলেন। তিনি এসে মধ্যস্থতা করলেন।’  

২০১৪-২০১৯ পর্যন্ত পাকিস্তানের ব্যাটিং কোচ ছিলেন ফ্লাওয়ার। ইউনুসের সঙ্গে ওই ঘটনায় কোনো ক্ষোভ নেই তার। ফ্লাওয়ার বলেন, ‘কোচিং করাতে গেলে এমন ঝামেলা একটু-আধটু পোহাতেই হয়। কোচিংয়েরই অংশ এগুলো। তবে আমি উপভোগ করেছি। আমার এখনো অনেক কিছু শেখার আছে। তবে এখন যে অবস্থানে আছি, নিজেকে ভাগ্যবান ভাবতেই পারি।’

সেই ইউনুস খানই পাকিস্তান কোচিং স্টাফে গ্র্যান্ড ফ্লাওয়ারের জায়গা নিয়েছেন। কিছুদনি আগে পাকিস্তানের ব্যাটিং পরামর্শকের দায়িত্ব পান তিনি। টেস্টে পাকিস্তানের সফলতম ব্যাটসম্যানের প্রথম অ্যাসাইনমেন্ট ইংল্যান্ডের মাটিতে। ২০১৭ সালে অবসরে যাওয়ার আগে ১১৮ টেস্টে ইউনুসের সংগ্রহ ১০,০৯৯ রান। ৩৪ সেঞ্চুরির সঙ্গে ফিফটি ৩৩টি। ৬টি ডাবল সেঞ্চুরি রয়েছে নামের পাশে। সর্বোচ্চ ৩১৩।

 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর