× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১৩ আগস্ট ২০২০, বৃহস্পতিবার

দেশ ও দলের দুর্দিনে আওয়ামী লীগ তৃণমূল কর্মীরা বারবার ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছেন

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ৬ জুলাই ২০২০, সোমবার, ৮:৪২

দেশ ও দলের দুর্দিনে আওয়ামী লীগের তৃণমূল কর্মীরা বারবার ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের নেতারা। বলেন, আমাদের দলীয় জনপ্রতিনিধিরা তৃণমূলের নেতা কর্মীদের সঙ্গে সমন্বয় করে জনগণের পাশে থেকেছে, এখনো আছে। করোনামুক্ত বাংলাদেশ হওয়ার আগ পর্যন্ত আমাদের তৃণমূলের নেতাকর্মীরা ও জনপ্রতিনিধিরা যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য জনগণের পাশে থাকবে। করোনাকালীন সংকট নিয়ে শনিবার রাতে বিশেষ ওয়েবিনার ‘বিয়ন্ড দ্যা প্যানডেমি’ এর নবম পর্বে ‘করোনা সংকট মোকাবিলায় তৃণমূলের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনায় এসব কথা বলেন আওয়ামী লীগের নেতারা। প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার শাহ আলী ফরহাদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আলোচক ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ. ফ. ম. বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, ভোলা- ৪ আসনের সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব, কক্সবাজার- ২ আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, খুলনা- ৬ আসনের সংসদ সদস্য আক্তারুজ্জামান বাবু এবং বাংলাদেশ কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি। আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরুর পর থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা এবং তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সমন্বয় করে রিলিফ কার্যক্রম কমিটি গঠন, রিলিফ প্রদানে সক্রিয় অংশগ্রহণ করে আওয়ামী লীগ। সাধারণ মানুষকে সচেতন করা থেকে শুরু করে, অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা কার্পণ্য করেনি। আওয়ামী লীগের দুর্দিনের নেতাকর্মীরা মৃত্যুভয়কে উপেক্ষা করে রিলিফ কার্যক্রম এখন পর্যন্ত পরিচালনা করছেন।
আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট আফজাল হোসেন বলেন, একজন সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে আমার সাংগঠনিক এলাকার উপজেলা ইউনিয়নের নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছি। আমাদের তৃণমূলের নেতাকর্মীরা ব্যক্তিগত উদ্যোগে মানুষের ঘরে ঘরে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়েছেন এবং এখনো দিচ্ছেন। এছাড়া আমাদের সকল স্তরের জনপ্রতিনিধিরা নিজস্ব এলাকায় সরকারি ও ব্যক্তিগত উদ্যোগ মিলিয়ে মানুষের পাশে থেকেছেন। আমরা কেন্দ্র থেকে সবকিছু সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছি। তিনি বলেন, আমাদের দপ্তরের হিসেব অনুযায়ী সারা দেশের তৃণমূলের নেতাকর্মীরা এখন পর্যন্ত প্রায় ১ কোটি ২০ লাখ মানুষের কাছে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়েছেন। আওয়ামী লীগের রাজনীতিই হলো অসহায় মানুষের পাশে থাকা, পাশে দাঁড়ানো, মানুষকে সহায়তা করা। আওয়ামী লীগের জন্মলগ্ন থেকে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা সব সময় অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর