× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৯ আগস্ট ২০২০, রবিবার

রৌমারীতে হুমকির মুখে শহর রক্ষা বাঁধ

বাংলারজমিন

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি | ১৫ জুলাই ২০২০, বুধবার, ৭:৫৮

রৌমারীতে দ্বিতীয় দফা বন্যায় লাখো মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। গত কয়েকদিনের টানা ভারি বর্ষণ আর পাহাড়ি ঢলে ব্রহ্মপুত্র ও  জিঞ্জিরাম নদীর পানি বিপদ সীমার ৮৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে উপজেলার প্রায় শতাধিক গ্রামের মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। কৃষকের ধান, পাট, সবজি ক্ষেতসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি  হয়েছে। হুমকির মুখে পড়েছে রৌমারী শহর রক্ষা বাঁধ। বন্যার পানি বাঁধ টপকাতে ছুঁই ছুঁই করছে। সেই সঙ্গে রৌমারী-ঢাকা সড়কের অবস্থাও ভালো নয়। সায়দাবাদ ও শিবেরডাঙ্গী এলাকায় ভাঙনের আশঙ্কা করা হচ্ছে।
হাঁস-মুরগি, গরু ছাগল নিয়ে মানুষ পড়েছে বিপাকে। বানের পানিতে  বন্দবেড় ইউনিয়নের কুটিরচর, কান্দাপাড়া, টাঙ্গারীপাড়া, বাইশপাড়া, যাদুরচর ইউনিয়নের চাক্তাবাড়ী, দিগলেপাড়া, নতুনগ্রাম, ধনারচর নতুনগ্রাম, চরের গ্রাম, মোল্লাপাড়া, পাখিউড়া, রৌমারী সদর ইউনিয়নের ঠনঠনিপাড়া, ভুন্দুরচর, বারবান্ধা, চুলিয়ারচর, চান্দারচর, নওদপাড়া, ব্যাপারীপাড়া, খাটিয়ামারী, রতনপুর, চরবামনেরচর, মোল্লারচর, শৌলমারী ইউনিয়নের বেহুলারচর, সুতিরপাড়, বোয়ালমারী, কলমেরচর, গয়টাপাড়া, চরশৌলমারী ইউনিয়নের ঘুঘুমারী, খেদাইমারী, চরখেদাইমারী, দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের ইটালুকান্দা, চরগয়টাপাড়া ছাটকড়াইবাড়ীসহ শতাধিক গ্রামের মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। তারা হাট-বাজার করতে পারছেন না।

এমনকি চরশৌলমারী, টাপুরচর, সায়দাবাদসহ বেশ কয়েকটি হাট-বাজারে পানি উঠে বাজার-ঘাট বন্ধ হয়ে গেছে।  বাঁধের পশ্চিম পাশের চরাঞ্চলীয় নদীপাড়ের মানুষ আশ্রয় নিয়েছেন অরক্ষিত উঁচু জায়গায়। খাদ্য ও বিশুদ্ধ পানি সমস্যায় পড়েছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল ইমরান বলেন, প্রথম দফার বন্যার ধকল সইতে না সইতে দ্বিতীয় দফার বন্যায় সকলের কাহিল অবস্থা। দিনমজুরদের অবস্থা আরও খারাপ। আমরা ত্রাণের জন্য জোর চেষ্টা চালাচ্ছি। আজকালের মধ্যে ২৪ মে.টন চাল পাওয়ার আশা করছি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর