× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৯ আগস্ট ২০২০, রবিবার

নবীগঞ্জের ইউএনও বিশ্বজিত কুমার পালের পদোন্নতি

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, নবীগঞ্জ থেকে | ১৫ জুলাই ২০২০, বুধবার, ৭:০৭

নবীগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পালের পদোন্নতি হয়েছে। গ্রীসের এথেন্সে বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) হিসেবে তাকে নিয়োগ দেয়া হয়। মঙ্গলবার রাতে বাংলাদেশ সরকারের জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রেষণ-১ অধিশাখার উপসচিব  মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ স্বাক্ষরিত এক পত্রে এ প্রজ্ঞাপনে ওই নির্দেশনা জারী করা হয়। ২০১৯ সালের ২১ ডিসেম্বরে গোয়াইনঘাট উপজেলা থেকে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে যোগদান করেন বিশ্বজিত কুমার পাল। যোগদানের পর থেকে সততা ও কর্মদক্ষতায় আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন তিনি। নবীগঞ্জে ৬ মাস ২৪ দিন দায়িত্ব পালনকালে শহরের যানজট নিরসন, শহর থেকে যানবাহনের স্ট্যান্ড ও অবৈধ দোকানপাট অপসারণ করেন। দীঘলবাক ইউনিয়নের কসবায় ও আউশকান্দি ইউনিয়নের পারকুল গ্রামে অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধ জেল-জরিমানা, অবৈধ ব্রিকফিল্ড ধ্বংস, ঐতিহাসিক শাখাবরাক নদীর দখলদার উচ্ছেদ, করোনাকালে দিনরাত মাঠ পর্যায়ে মানুষকে সচেতনতায় নিরলস তৎপরতা, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ও স্বাস্থ্যবিধি আইন অমান্য করায় অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে করেছেন জরিমানা।  এছাড়াও অনেক উল্লেখ্যযোগ্য ঘটনার জন্মদিয়ে সবসময় সর্বত্র আলোচনায় ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিশ্বজিত কুমার পাল। করোনাকালে সর্বদা মাঠ পর্যায়ে থেকে কাজ করার সুফল হিসেবে হবিগঞ্জ জেলার মধ্যে একমাত্র ইউএনও হিসেবে শুদ্ধাচার পুরস্কারে মনোনীত হন।
স্বল্প সময়ে মেধা, পরিশ্রম সততা ও কর্মদক্ষতা দিয়ে মনজয় করেছেন নবীগঞ্জবাসীর। উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে বিশ্বজিত কুমার পাল গোয়াইনঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, শ্রীমঙ্গল উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) দায়িত্ব পালন করেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর