× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, রবিবার

নাট্যাঙ্গনে ফিরেছে প্রাণ

বিনোদন

এনআই বুলবুল | ৩০ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৮:০৯

আসছে ঈদটা টিভি নাটকের অভিনেতা-অভিনেত্রী ও কলাকুশলীদের জন্য একেবারেই অন্য রকম। গেল রমজান ঈদ আর এবারের ঈদের চিত্র পুরোটাই বিপরীতমুখী। করোনাভাইরাসের কারণে গেল বৈশাখ ও ঈদে সব ধরনের শুটিং বন্ধ ছিল। ফলে নতুন নাটকের দেখা মেলেনি।  কিন্তু চলতি মাসে নাটকের সেই খরা কেটে গেছে বলা চলে। প্রাণ ফিরেছে নাট্যাঙ্গনে। এরইমধ্যে  তৌকীর আহমেদ, জাহিদ হাসান, তারিন, মীর সাব্বির, মোশাররফ করিম, চঞ্চল চৌধুরী, অপূর্ব, মেহজাবিন, আফরান নিশো, নাদিয়া আহমেদ, তাসনুভা তিশা, ফারিয়া শাহরিন, ভাবনা, তাসনিয়া ফারিনসহ আরো অনেক শিল্পীই ঈদের নাটকের শুটিং করেছেন। বলা চলে ঈদের নাটকের মাঠে সরব হয়েছেন শিল্পীরা। ঈদের আগের দিন পর্যন্ত ঈদের নাটকের শুটিং হবে বলে জানা গেছে।
টিভি চ্যানেলগুলোও ঈদের নতুন নাটকে ভরপুর থাকছে। শিল্পীরাও দারুণ উচ্ছ্বসিত ঈদের নাটক নিয়ে। জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী বলেন, অভিনয়ের বাইরে আমার বিকল্প কিছু নেই। অনেক দিন সব ধরনের শুটিং থেকে দূরে ছিলাম। কিন্তু এভাবে বসে খেলে রাজার ভা-ারও ফুরিয়ে যায়। এ ছাড়া ঈদে দর্শকের প্রত্যাশা একটু বেশি থাকে। আমার দর্শকদের কথা ভেবেই কাজ শুরু করেছি। ঈদে কয়েকটি নাটকে আমাকে দেখা যাবে। আমি বরাবরই গল্প ও চরিত্রকে প্রাধান্য দিয়ে আসছি। এবারের নাটকগুলোও তার ব্যতিক্রম নয়। ঈদের বেশ কয়েকটি নাটকে দেখা যাবে জনপ্রিয় অভিনেত্রী তারিনকে। দীর্ঘ সময় দারুণ জনপ্রিয়তা নিয়ে নিয়মিত কাজ করছেন তিনি। ঈদের নাটক প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি বিশ্বাস করি গেল ঈদে যারা তাদের প্রিয় শিল্পীদের নাটক মিস করেছেন এবার সেটি পূরণ হবে। প্রতিবছরের মতো এবার ঈদেও প্রায় সব শিল্পী একাধিক নাটক নিয়ে পর্দায় থাকছেন। আমিও কয়েকটি নাটকে কাজ করেছি। এখন যেহেতু পরিস্থিতি আমাদের পক্ষে নেই তাই বেছে বেছে এই কাজগুলো করা হয়েছে। যাতে শুটিং স্পটে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুটিং করা যায় সে ধরনের গল্প পছন্দ করেছি। জনপ্রিয় অভিনেত্রী নাদিয়া আহমেদ এবার ঈদে ছয়টি ধারাবাহিকে থাকছেন বলে জানান। তিনি বলেন, গেল ঈদের সময় পুরো বাসায় কেটেছে। করোনা পরিস্থিতি আমাদের সবকিছু এলোমেলো করে দেয়। কিন্তু এভাবে তো দীর্ঘদিন ঘরে থাকা সম্ভব নয়। তাই কাজ করছি। সময়টা যেহেতু ঈদের তাই এই সময়ের নাটকগুলো ঈদের জন্যই করেছি। অনেকের হয়তো ভাবনা ছিল আমাদের এই মন্দা সময় কাটিয়ে উঠতে সময় লাগবে। কিন্তু  আমি সেটি মনে করি না। একটু সচেতন থাকলে সবকিছু করা সম্ভব। ঈদের নাটকের শুটিং সেটিই বলে- আমি মনে করি। জনপ্রিয় অভিনেতা মীর সাব্বির বলেন, আমাদের করোনা পরিস্থিতি খুব সহজে যাবে না। এই পরিস্থিতিতে সচেতন থেকেই আমাদের কাজ করতে হবে। উৎসবগুলোতে আমাদের দর্শক নাটকের প্রতি আগ্রহী থাকে বেশি। এর আগে দুটি উৎসবে আমরা কাজ করতে পারিনি। এবার ঈদে সেই মন্দা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছি। আমি আশা করছি ঈদের পরও আমাদের শিল্পীরা নিয়মিত শুটিং করবেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর