× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, রবিবার
ঈদের প্রথম তিনদিন

মানসম্পন্ন অনুষ্ঠান প্রচারের চেষ্টা ছিল চ্যানেলগুলোর

বিনোদন

ফয়সাল রাব্বিকীন | ৫ আগস্ট ২০২০, বুধবার, ৭:৫৬

এবারের টিভি চ্যানেল এবং অনলাইন প্ল্যাটফরমগুলোর ঈদ আয়োজন ছিল গত কয়েক বছরের মধ্যে সব থেকে ব্যতিক্রম। কারণ করোনা পরিস্থিতির কারণে গত রোজার ঈদে শুটিং বন্ধ ছিল। তাই বেশির ভাগ পুরনো নাটকই চালিয়েছিল টিভি চ্যানেলগুলো। রোজার ঈদের পর পরই স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুরু হয় শুটিং। প্রথমদিকে বেশকিছু তারকা নিরাপত্তার কথা ভেবে শুটিংয়ে অংশ নেননি। তবে পরবর্তীতে প্রায় সবাই কাজ করেছেন। তবে এক্ষেত্রে ইনডোরভিত্তিক কাজই বেশি হয়েছে। গল্পও সেই অনুযায়ী করা হয়েছে।
কিছু নাটকে আবার করোনার বিষয়টিকেও উঠিয়ে আনা হয়েছে। এবার ঈদে টিভি চ্যানেল ও অনলাইন প্ল্যাটফরমে খণ্ড নাটক, ধারাবাহিক ও টেলিছবি প্রচার হয়েছে অনেক। পাশাপাশি চ্যানেলগুলোতে ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান, পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা চলচ্চিত্র, লাইভ অনুষ্ঠান, শিশুতোষ অনুষ্ঠানও প্রচার হয়েছে। করোনার মাঝেও মানসম্পন্ন অনুষ্ঠান প্রচারের চেষ্টা ছিল চ্যানেল ও অনলাইন প্ল্যাটফরমগুলোর। যদিও এবারও বিভিন্ন চ্যানেলে অনুষ্ঠানের মাঝে বিজ্ঞাপনের আধিক্যে বিরক্ত ছিলেন দর্শক। অনেক দর্শক সেই বিরক্তি কাটাতে ইউটিউবকেই নাটক উপভোগের মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছেন। এবারের ঈদের তৃতীয় দিন বিটিভিতে প্রচারিত হানিফ সংকেতের গ্রন্থনা, উপস্থাপনা ও পরিচালনায় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’ ছিল বরাবরের মতো প্রশংসিত। অন্যদিকে ঈদের পরদিন চ্যানেল আইতে প্রচারিত শাইখ সিরাজের পরিকল্পনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনায় ‘কৃষকের ঈদ আনন্দ’ এবার সাজানো হয়েছিলো অন্যরকম আয়োজনে। এটিও নজর কেড়েছে দর্শকদের। একই চ্যানেলে প্রচারিত নাটক ‘ক্রিস্টালের রাজহাঁস’ ছিল দর্শকদের পছন্দের তালিকায়। এর বাইরে বাংলাভিশনে মিজানুর রহমান আরিয়ানের ভিন্নধর্মী গল্পের নাটক ‘শহর ছেড়ে পরাণপুর’ প্রচার হয়ে বেশি প্রশংসিত হচ্ছে। অভিনয়ে ছিলেন নুসরাত ইমরোজ তিশা, তাসনিয়া ফারিন ও ইয়াশ রোহান। একই পরিচালকের দীপ্ত টিভিতে প্রচারিত অপূর্ব ও মেহজাবিন অভিনীত ‘প্রাণপ্রিয়’ নাটকটিও আলোচনায় এসেছে। ইউটিউবে প্রচারিত কাজল আরেফীন অমি পরিচালিত ‘মাস্ক’ ছিল কমেডি নাটকগুলোর মধ্যে অন্যতম প্রশংসিত। অভিনয়ে ছিলেন মারজুক রাসেল, চাষী আলম, তাসনিয়া ফারিন, পলাশ প্রমুখ। ঈদের দিন এটিএন বাংলায় প্রচারিত হানিফ সংকেতের পরিচালনায় নাটক ‘মনের মতি মনের গতি’ ছিল বিনোদনের সঙ্গে মেসেজনির্ভর একটি নাটক। এটিও দর্শক উপভোগ করেছেন বেশ। আরটিভিতে প্রচারিত হাবিবুর রহমান হাবিব পরিচালিত খণ্ড নাটক ‘ট্রাস্ট মি’ ছিল আলোচিত। মাছরাঙায় প্রচারিত সাখাওয়াত মানিকের ‘বিয়ের প্রস্তুতি’ নাটকটিও নজর কেড়েছে দর্শকদের। এদিকে এনটিভিতে প্রচারিত ঈদ ধারাবাহিক ‘মেষরাশি’ রয়েছে আলোচনায়। বৈশাখী টিভিতে প্রচার চলতি ঈদ ধারাবাহিক ‘বুইড়া জামাই’ বেশ পছন্দ করছেন দর্শক। একুশে টিভিতে প্রচারিত খণ্ড নাটক ‘বিবাহ বিভ্রাট’ নজর কেড়েছে দর্শকদের। এর বাইরে ইউটিউবে উন্মুক্ত হওয়া কিছু নাটকও বেশ পছন্দ করেছেন দর্শক। এরমধ্যে রয়েছে ‘গরুর মাংস’, ‘এ বিটার লাভস্টোরি’, ‘একাই একশ’, ‘কেন’, ‘টাকাটা কই’, ‘অবাক প্রেম’, ‘টয় বয়’, ‘নিউলি ম্যারেড’, ‘ভাই ঠকছেন’, ‘হেলথ কাভারেজ’সহ বেশকিছু নাটক।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর