× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার

হাটহাজারীতে গাছের সাথে এ কেমন শত্রুতা!

বাংলারজমিন

হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি | ৬ আগস্ট ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৪:১৬

রাতের অন্ধকারে পূর্ব শত্রুতার জেরে চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে বাগানের ৫শতাধিক গাছের চারা কেটে ফেলায় এলাকায় সমালোচনা ও নিন্দার ঝড় উঠেছে। এ ঘটনায় হাটহাজারী মডেল থানায় বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) একটি মামলা হয়েছে।
ঘটনাটি ঘটেছে হাটহাজারী বাসস্ট্যান্ডের পশ্চিমে ১নং দক্ষিণ পাহাড়তলী স্বন্দ্বীপ কলোণিস্থ স্বন্দীপপাড়া এলাকায়।ভুক্তভোগী রেহেনা বেগম কান্নাজড়িত কণ্ঠে দৈনিক মানবজমিন কে বলেন, প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করে বিচার না হওয়ায় আমার সন্তানের মতো এই চারা গাছের প্রতি এমন শত্রুতা দেখিয়েছেন একই এলাকার মো. রহিম, তার স্ত্রী বাচু ও পুত্র হৃদয় গং। এতে আমার প্রায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। ভুক্তভোগী রেহেনা বেগম ঐ এলাকার গিয়াস উদ্দিনের স্ত্রী।
ভুক্তভোগী রেহেনা বেগম মানবজমিন কে বলেন, প্রতিপক্ষগণ দফায় দফায় আমাদের উপর হামলা করে। প্রতিবার থানায় অভিযোগ করেও কোন বিচার পাইনি। তারা আবারো ১আগষ্ট পবিত্র ঈদের দিন রাতে স্বন্দীপপাড়া পাহাড়ে লাগানো বাগানের ২শ কলা গাছ ও ৩ শতাধিক আকাশি গাছের চারা কেটে দিয়েছে। এতে প্রায় দেড় লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। পূর্ব শত্রুতার জেরেই এ পরিবেশবান্ধব ও ফলজি গাছের প্রতি অমানবিক ঘটনা ঘটিয়েছে তারা।
হাটহাজারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদ আলম মানবজমিন কে জানান, গাছের সাথে শত্রুতা দেখিয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে এবং এসআই হাবিব মামলাটির তদন্ত অফিসার।
আসামি ধরার জন্য পুলিশ মাঠে কাজ করছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর