× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার

বৈরুত বিস্ফোরণ: এখনো নিখোঁজ ৬০ জনের বেশি

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৯ আগস্ট ২০২০, রবিবার, ৮:৪৫

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে হওয়া ভয়াবহ কেমিক্যাল বিস্ফোরণের পর এখনো নিখোঁজ রয়েছেন ৬০ জনের বেশি মানুষ। এতে নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ১৫৫ জন। আহত হয়েছেন ৬ হাজারেও বেশি। এখন পর্যন্ত মৃত ২৫ জনের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এ খবর দিয়েছে কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আল-জাজিরা। এতে লেবাননের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে জানানো হয়েছে, আহতদের মধ্যে ১২০ জনের অবস্থা গুরুতর। ফলে মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।
এদিকে ভয়াবহ পরিস্থিতিতে লেবাননের পাশে দাঁড়াতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে আরব লীগসহ ফ্রান্স, যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইল।
আরব লীগের প্রধান আহমেদ আবুল ঘেইত বলেন, এই সময়ে লেবাননের পাশে থাকবে আরবরা। একই সঙ্গে বিস্ফোরণ নিয়ে পরবর্তী পর্যায়ে তদন্তেও সাহায্য করতে চায় জোটটি। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন একটি সম্মেলন আয়োজন করতে যাচ্ছেন যেখান থেকে লেবাননের জন্য আর্থিক সাহায্য তোলা হবে। এর আগে বৈরুতকে পূর্বের অবস্থায় নিয়ে যেতে কাজ করবে বলেও প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ফ্রান্স। ম্যাক্রন আয়োজিত সম্মেলনের প্রধান সহযোগী রাষ্ট্র হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এখান থেকেই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে কীভাবে লেবাননকে দেয়া অর্থ সরাসরি লেবানিজদের সাহায্য করতে পারে। ম্যাক্রন গত বৃহসপতিবার বৈরুত সফর করেন। লেবানিজদের পাশে থাকার সব ধরনের আশ্বাস প্রদান করেন তিনি। এ ছাড়া, বিস্ফোরণের পর চিকিৎসা সাহায্য দেয়ার প্রস্তাব জানায় প্রতিবেশী ইসরাইল।
লেবাননভিত্তিক টিভি চ্যানেল আল ময়াদিন জানিয়েছে, বিস্ফোরণে নিহত হওয়াদের মধ্যে ৪৩ জনই সিরিয়ার নাগরিক। লেবাননে অবস্থিত সিরিয়ার দূতাবাসও এ খবর নিশ্চিত করেছে। ঘটনার প্রেক্ষিতে সর্বোচ্চ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন লেবাননের প্রেসিডেন্ট। কীভাবে এই দুর্ঘটনা হলো তা নিয়ে চলছে জোর তদন্ত। এখন পর্যন্ত ১৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে লেবানিজ কর্তৃপক্ষ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর